woadi loader image

woadi Affiliate (Business Engine)

ওয়াদি এ্যাফিলিয়েট (ওয়াদি বিজনেস ইঞ্জিন)

২০২০ সালের হিসাব অনুযায়ী বাংলাদেশে প্রতি ১০০ জনে ৫ জন মানুষ বেকার ছিল। করোনা মহামারীর কোভিড মহামারীতে এই সংখ্যা আরো তরান্নিত হচ্ছে। প্রযুক্তিগত ভাবে আমরা যদি আগাতে না পারি, প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মধ্যে বেকারত্বের হার বাড়তেই থাকবে ওয়াদি সবসময় দেশের বেকারত্ব দূরীকরণ বিশেষ করে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য কাজ করে যাচ্ছে।আধুনিক এই প্রযুক্তির যুগে প্রান্তিক জনগোষ্ঠিকে বিশেষ করে প্রান্তিক নারীদের আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে স্বাবলম্বী করার লক্ষে ওয়াদি নিয়ে আসছে "ওয়াদি বিজনেস ইঞ্জিন।

Sign Up

ওয়াদি বিজনেস ইঞ্জিন কি?

বিসনেস ইঞ্জিন হলো একটি এ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম, এখানে দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে ওয়াদি পণ্য বিক্রি করে আয় করা যাবে । ছাত্র ছাত্রী, গৃহিনী, বেকার সহ যে কেউ নিজ নিজ জায়গা থেকে ওয়াদির পণ্য বিক্রি করে, বিক্রিত পণ্যের মূল্যের উপর কমিশনের ভিত্তিতে আয় করতে পারবেন।

এখানে কারা অংশ গ্রহণ করতে পারবে:

দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে যে কেউ অংশ গ্রহন করতে পারবে তবে নারী এ্যাফিলিয়েটরগণ অগ্রাধিকার পাবেন।

অংশ গ্রহণ করতে কি প্রয়োজন:

স্মার্ট ফোন, ল্যাপটপ কম্পিউটার ইত্যাদি দিয়ে ওয়াদি এ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম এ অংশ গ্রহণ করে কাজ করতে পারবেন।

কাজের সময়:

আপনি আপনার কাজের পাশাপাশি আপনার পছন্দমত সময়ে এই কাজ করতে পারবেন।

কিভাবে এই প্রোগ্রাম এ অংশ গ্রহণ করবেন:

এই প্রোগ্রাম এ অংশ গ্রহণ করতে হলে প্রথমে ওয়াদি ওয়েবসাইট থেকে এ্যাফিলিয়েট একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য পূরন করতে হবে, ওয়াদি কর্তৃপক্ষ আপনার তথ্য ভেরিফাই করে আপনার একাউন্ট এপ্রোভ করবেন ।একাউন্ট এপ্রোভ হবার পর, এ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম এর আওতায় থাকা পণ্য গুলো নিজের এ্যাফিলিয়েট পোর্টালে অ্যাড করতে হবে। এড করা হয়ে গেলে সয়ংক্রিয়ভাবে লিংক তৈরি হবে।

কিভাবে কাজ করবেন:

আপনার এ্যাফিলিয়েট পোর্টালথেকে পণ্যের এর লিংক গুলো শেয়ার করুন ফেইসবুক, ওয়েবসাইট, ইউটিউব সহ যেকোনো প্লাটফর্মে।আপনার শেয়ার করা লিংক থেকে কেউ পণ্য টি কিনলে আপনি পেয়ে যাবেন স্মার্ট এমাউন্ট এর কমিশন।

বিঃদ্রঃ: বিসনেস ইঞ্জিন থেকে অর্ডার কৃত পণ্য ২ থেকে ১০ দিনের মধ্যে ডেলিভারি সম্পন্ন করাহবে।

যেহেতু প্রোগ্রামটি  নতুন শুরু, স্টক অথবা বিশেষ কারণে রিফান্ড করার প্রয়োজন হলে সর্বোচ্চ ৭ দিনের মধ্যে রিফান্ড সম্পন্ন করা হবে।